TrickBlogBD.com

Gain and Give knowledge

Sponsored

News

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে? কিন্তু কেন? জেনে নিন

সিমের পর এবার মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। কথাটা কি সত্য? হুম সত্য। আমিও খবরটা জানতে পেরেছি। বিটিআরসি সম্প্রতি এমন উদ্যোগ নিচ্ছে।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন
মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন

কেন এই মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন? সুবিধা কি?

সিমের মত মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশনেরও মূল উদ্যেশ্য অপরাধ কমইয়ে আনা। ইদানিং বাংলাদেশে সাইবার অপরাধ অনেক বেড়ে গেছে।

Advertisement

তাই এসব অপরাধে লাগাম দেওয়ার জন্যই এই সময়োপযোগী উদ্যোগ। এখন আপনার মোবাইল চুরি করে নিয়ে গেলেও চিন্তার কোন কারণ নেই। কেউ সেটা ব্যবহার করতে পারবে না।

যাই নামে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করা থাকবে শুধু তার সিমই ঐ মোবাইলে ব্যবহার করা যাবে।

অর্থাৎ যার নামে সিম রেজিস্ট্রেশন করা, তার নামে মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা থাকতে হবে। একজনের সিম আরেকজন ব্যবহার করতে পারবে না।

তাই আপনার ফোন চাইলেই কেউ ব্যবহার করতে পারবেনা। আপনার ফোন চুরি হয়ে গেলে আপনি চাইলেই সেটা ব্লক করে দিতে পারবেন। আর কেউ সেই মোবাইল চালাতে পারবেনা।

Advertisement

এইসব কিছু করা হবে আইএমইআই কোড রেজিস্ট্রেশন করার মাধ্যমে। তবে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার উপকারই বেশি।

আপনার মোবাইল দিয়ে কেউ অপরাধ করতে পারবেনা। চাইলেই সেটা সম্ভব নয়।

প্রত্যক জিনিসের ভালো দিকের সাথে খারাপ দিকও আছে। মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন এর ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম নয়। চলুন জেনে নেই মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন এর কিছু অসুবিধা।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন এর কিছু অসুবিধা

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করলে আপনাকে কিছু ঝামেলা পোহাতে হবে। চাইলেই আপনি মোবাইল বিক্রি করতে পারবেন না। কারণ এক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশন পরিবর্তন করতে পারবেন না।

অনেকেরই নিজের নামে নিম রেজিস্ট্রেশন করা নেই। তাই তারা পড়বেন বড় ঝামেলায়। অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করা সিম আপনার মোবাইলে চলবেনা।

কারণ, সিম যার মোবাইল ও তার হতে হবে।

Advertisements

কীভাবে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করবেন?

আপনি নতুন মোবাইল কিনলে খুব সহজেই রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। মোবাইলে প্রথম যে সিম ঢুকাবেন সেই সিম যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা মোবাইলও তার নামে রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে।

আর পুরাতন মোবাইলের ক্ষেত্রে এখনো কোন নিয়ম জানানো হয়নি।

যেভাবে মোবাইল ফোনের রেজিস্ট্রেশন চ্যাক করবেন

প্রথমে *#06# ডায়াল করে আপনার মোবাইলের ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর বের করুন। এরপর মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন KYD IMEI no. আর সেন্ড করুন ১৬০০২ নম্বরে।

বিটিআরসি থেকে আপনাকে ম্যাসেজ করে বিস্তারিত জানিয়ে দেওয়া হবে।

সূত্রঃ Real tech master

Read more….

Advertisement

এই পোস্ট সম্পর্কে আপনার কোনো মন্তব্য, পরামর্শ বা অভিযোগ থাকলে নিছে কমেন্ট করুন। আমরা প্রত্যেকটা কমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করি।

সকল আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন ও টুইটারে ফলো করুন

ট্রিক ব্লগ বিডি

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Admin Habibur Rahman is a School teacher. He is a mathematics students at Honners.