TrickBlogBD.com

Gain and Give knowledge

ব্লগ তৈরি করার নিয়ম, ব্লগ তৈরি করার নিয়ম ও ব্লগ তৈরি করে আয় করার সকল উপায়, TrickBlogBD.com
Earning tips Webmaster Tricks

ব্লগ তৈরি করার নিয়ম ও ব্লগ তৈরি করে আয় করার সকল উপায়

ব্লগ কি?

একটি ব্লগ খোলার বা ব্লগ তৈরি করার আগে আমাদের জানতে হবে ব্লগ কি? এরপর আমরা ব্লগ তৈরি করার নিয়ম জানবো। ব্লগ হচ্ছে এক ধরণের ওয়েবসাইট যেখানে বিভিন্ন ব্লগাররা লিখেন। যারা ব্লগে লিখেন তারাই হলেন ব্লগার। এই ধরণের সাইটে পাঠকরা তাদের মন্তব্য করতে পারেন।

ব্লগ তৈরি করার নিয়ম, ব্লগ তৈরি করার নিয়ম ও ব্লগ তৈরি করে আয় করার সকল উপায়, TrickBlogBD.com
ব্লগ তৈরি করার নিয়ম (ছবি- বেস্ট ওয়ে টু ডু ইট)

ব্লগ তৈরি করার নিয়ম

একটি ব্লগ তৈরি করার জন্য আপনার কিছু জিনিসের দরকার হবে। তার মধ্যে হোস্টিং ও ডোমেইন অন্যতম। ডোমেইন ও হোস্টিং কি? সেটা নিয়ে আমি ইতোমধ্যেই আমার ব্লগে লিখেছি। সেই লেখাটি পড়ে নিন। তারপরেও ছোট্ট করে কিছু লিখছি।

ডোমেইন কি?

এক কথায় ডোমেইন হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম। যেমন আমাদের ব্লগের নাম TrickBlogBD.com । ডোমেইন বিভিন্ন নামের হতে পারে। যেমনঃ .com, .net, .info, .mobi, .org, .edu, .gov ইত্যাদি।

হোস্টিং কি?

একটি ব্লগ তৈরি করার জন্য আরেকটি প্রয়োজনীয় জিনিস হচ্ছে হোস্টিং। আপনার ব্লগের কন্টেন্ট বা ফাইলগুলো যেখানে জমা থাকবে তাকেই হোস্টিং বলে। এটা আমাদের কম্পিউটারের হার্ড ডিস্ক বা মোবাইলের মেমোরি কার্ডের মতো কাজ করে।

ভালো মানের মেমোরি কার্ড কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

কম দামে ভালো ডোমেইন ও হোস্টিং কিনলে অর্ধেক কাজ শেষ। এরপর কাজ হচ্ছে ওয়েবসাইট ডিজাইনিং বা ওয়েব ডেভেলপিং।

ব্লগ ডিজাইন বা ডেভেলপমেন্ট

বর্তমানে আপনি কোনো প্রকার কোডিং ছাড়াই একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ ডিজাইন করতে পারবেন। এর জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েব ডেভেলপিং ও পাবলিশিং টুলস হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস

ওয়ার্ডপ্রেস কি?

ওয়েবমাস্টারদের কাছে ওয়ার্ডপ্রেস একটি ওয়েব পাবলিশিং টুলস নামে পরিচিত। এই টুলসের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই একটি থিম আপলোডের মাধ্যমে ১-২ মিনিটেই একটি ব্লগ তৈরি করে ফেলতে পারবেন। আপনার হোস্টিং এর cPanel থেকেই ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করতে পারবেন।

এরজন্য আপনার কোনো প্রকার কোডিং জ্ঞান দরকার হবেনা। ওয়ার্ডপ্রেস মূলত ব্লগ সাইট তৈরির জন্য চালু করা হয়েছিল। কিন্তু এটি এতই জনপ্রিয়তা পায় যে এখন অনেক ই কমার্স সাইটেও ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করা হয়।

ব্লগে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার নিয়ম

ব্লগ তৈরি করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস থিম কোথায় পাব?

আমরা ইতোমধ্যেই জেনেছি যে, একটি ব্লগ তৈরি করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস থিম দরকার। ওয়ার্ডপ্রেস প্রিমিয়াম থিম কিনতে পাওয়া যায়। আপনি চাইলেই নিজের পছন্দমতো ডিজাইনের থিম কিনতে পারেন। এছাড়াও আপনার ব্লগের থিম অপশনে গেলে হাজার হাজার ফ্রী থিম পাবেন।

ফ্রী থিম গুলোও যথেষ্ঠ ভালো মানের। এই পোস্ট লেখার সময় আমাদের ব্লগে যেই থিমটা আছে ঐটাও ফ্রী থিম। তাই আপনিও ফ্রী থিম ব্যবহার করতে পারেন। ফ্রী থিম ডাউনলোড করেও আপলোড করা যায়।

ব্লগে থিম ইন্সটল করার নিয়ম

ব্লগ তৈরি করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস থিম কিনার ওয়েবসাইট

থিম কিনার অনেক ওয়েবসাইট আছে। তারমধ্যে কিছু জনপ্রিয় সাইটের লিস্ট নিচে দেওয়া হলো।

ব্লগ তৈরি করে আয় করার নিয়ম

একটি ভালো ব্লগ মানে একটি টাকার গাছ। আপনি এতক্ষণ ব্লগ তৈরি করার নিয়ম কানুন শিখলেন। এবার শিখুন কীভাবে ব্লগ থেকে টাকা আয় করা যায়।

ব্লগ থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করা যায়। নিচে কিছু জনপ্রিয় উপায় নিয়ে আলোচনা করা হলো।

  • গুগল এডসেন্স এড
  • অন্যান্য কোম্পানির এড বা বিজ্ঞাপন
  • স্পনসরশীপ
  • অ্যাফেলিয়েট মার্কেটিং

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয়

বাংলাদেশের ব্লগারদের আয় করার প্রথম মাধ্যম হচ্ছে গুগল এডসেন্স। এডসেন্স হচ্ছে টেক জায়ান্ট গুগল এর বিজ্ঞাপন কোম্পানি। এটি বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন বিজ্ঞাপন মাধ্যম।

গুগল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করতে হয়। আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ কিছু নিয়ম ফলো করলেই আপনি এডসেন্স পাবেন। অনেকেই এডসেন্সকে সোনার হরিণ মনে করেন।

অনেক ব্লগার এডসেন্স এর জন্য দিনরাত একাকার করে ফেলছেন। কিন্তু এডসেন্স এপ্রুভ হচ্ছেনা। ফলে তারা ব্লগিং থেকে ফিরে যাচ্ছেন। আসলে তারা কিছু কমন ভুল করে থাকেন।

আমার মতে এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়া খুবই সহজ। আপনিও কিছু নিয়ম মেনে চললে সহজেই এডসেন্স পেয়ে যাবেন। আর এরপর টাকা আয় করতে পারবেন।

এডসেন্স কি? এবং সহজে এডসেন্স পাওয়ার নিয়মকানুন নিয়ে আমি ব্লগে লিখেছি। সেই লেখাটি পড়ে আসুন।

অন্যান্য কোম্পানির এডের মাধ্যমে ব্লগ থেকে টাকা আয়

এডসেন্স ছাড়াও বিশ্বে আরো অনেক এডভার্টাইজ কোম্পানি আছে। আপনি তাদের এড আপনার সাইটে দেখিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। এরকম কিছু সাইটের লিস্ট নিচে দেওয়া হলো।

স্পনসরশীপ থেকে টাকা আয়

আপনি বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন পণ্যের জন্য স্পনসরশীপ নিতে পারেন। তাদের পণ্যের ব্র‍্যান্ডিংয়ের মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে ব্লগ থেকে টাকা আয়

বিভিন্ন কোম্পানির পণ্য একটা বিশেষ লিংকের মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়াই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। বিভিন্ন অনলাইন শপ ও সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান আছে।

তাদের বিভিন্ন পণ্য বা সেবা আপনার অ্যাফিলিয়েট লিং বা রেফারেল লিংকের মাধ্যমে সেল বা বিক্রি করে দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

এজন্য প্রত্যেক সেলে ২-১৫% পর্যন্তও কমিশন পাওয়া যায়। ১০% কমিশন হলে, ১০০০ টাকার ১০ টি পণ্য বিক্রি করে দিতে পারলে আপনি ১০০০ টাকা কমিশন পেয়ে যাবেন।

আপনার ভালো একটি ব্লগ বা ইউটিউব চ্যানেল থাকলে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে মাসে ২০-৩০ হাজার টাকা অনায়াসে আয় করা সম্ভব। কেউ কেউ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে মাসে ১ লক্ষ টাকাও আয় করছেন।




2 COMMENTS

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *

হাবিবুর রহমান বর্তমানে শাকতলা আল আমিন জুনিয়র স্কুল এ সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োজিত আছেন। একই সাথে তিনি একজন ব্লগার। তার নিজের তৈরি করা ব্লগ ট্রিক ব্লগ বিডি। যার ওয়েব লিংক http://Trickblogbd.com । তিনি ব্লগিং এর মাধ্যমে মানুষের মাঝে তার জানা জ্ঞান ভাগাভাগি করতে চান।