TrickBlogBD.com

Gain and Give knowledge

জাতীয় পরিচয় পত্র বা স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড
Sponsor Post

২ মিনিটে জাতীয় পরিচয় পত্র চেক ও ডাউনলোড করার নতুন নিয়ম [২০২০] (ভিডিও)

জাতীয় পরিচয় পত্র চেক ও ডাউনলোড করার নিয়ম

একজন নাগরিকের জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র বা স্মার্ট কার্ড খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। এটি এনআইডি কার্ড (NID card) নামেও পরিচিত। জাতীয় পরিচয় পত্র চেক, ডাউনলোড ও ভুল সংশোধন করার নিয়মগুলো আজকে আলোচনা করব।

স্মার্ট কার্ড ডাউনলোডের সিস্টেমটি পরিবর্তিত হয়েছে। তাই আমরাও আমাদের পোস্টটি নতুন করে আপডেট করেছি। স্মার্ট কার্ড ডাউনলোডের নিয়ম ২০২০ অনুযায়ী আপনি অনলাইন থেকে আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

নতুন ভোটার ও পুরাতনদের জন্য NID card ডাউনলোডের সিস্টেমটি আলাদা করে দেওয়া হয়েছে। আমরা বর্তমানে শুধু নতুন ভোটারের জন্য অর্থাৎ যারা এখনো আইডি কার্ড পাননি তাদের জন্য নিয়মকানুন জানিয়ে দিব। আস্তে আস্তে বাকিদের সিস্টেমটিও আপডেট করা হবে।

স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড

বর্তমানে স্মার্ট কার্ড হিসেবে এনআইডি কার্ড পাওয়া যায়। তাই স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড করার করার নিয়মটা আজকে জানিয়ে দিব। যারা নতুন ভোটার হয়েছেন তারা খুব সহজেই স্মার্ট কার্ড নিতে পারবেন।

এই আইডি কার্ডটি আপনি মূল আইডি কার্ডের মতোই ব্যবহার করতে আরবেন। সেজন্য এটিকে প্রিন্ট করে র‍্যাপিং করে নিবেন। স্মার্ট আইডি কার্ড হচ্ছে জাতীয় পরিচয় পত্রের নতুন সংস্করণ।

এই নিয়মেই স্মার্ট কার্ড বা আইডি কার্ড চেক করতে পারবেন। আর খুব সহজেই জাতীয় পরিচয় পত্র আসল না নকল তা বুঝতে পারবেন।

তাহলে চলুন, জাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড করার সহজ নিয়মটি জেনে নেই।

জাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড করার নিয়ম

নির্বাচন কমিশন তাদের সিস্টেমে কিছিটা পরিবর্তন এনেছে। তাই এখন আগের মতো একই নিয়ম সবাই জাতীয় পরিচয় পত্র বা স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড করতে পারেন না। সবার জন্য আলাদা নিয়ম করা হয়েছে।

নতুন ভোটারের ক্ষেত্রে স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড

যারা এখনো ভোটার আইডি কার্ড হাতে পাননি এই নিয়মটি শুধুমাত্র তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। এনআইডি কার্ড না পেয়ে থাকলে খুব সহজেই মাত্র ২ মিনিটে আপনি এনআইডি কার্ডের নতুন সংস্করণ স্মার্ট কার্ড পেতে পারেন।

নতুনদের জন্য আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়মকানুনের পুরা ভিডিও
ভিডিও- Real tech master

সর্বপ্রথম এই লিংকে ক্লিক করুন। এরপর নিচের মতো একটি পেজ পাবেন। সেখানে ভোটার নিবন্ধন ফরমের স্লিপ নম্বর ও জন্ম তারিখ দিন। এরপর ক্যাপচা এন্ট্রি করে ভোটার তথ্য দেখুন লেখাটিতে ক্লিক করুন।

সবকিছু ঠিক থাকলে আপনার আইডি কার্ডের সকল তথ্য পেয়ে যাবেন। এখান থেকে লাল রঙে লেখা আপনার আইডি নম্বর সংগ্রহ করুন। এটি পরবর্তীতে কাজে লাগবে।

জেনে নিন ক্যাপচা কি? এবং কেন?

ভোটার তথ্য সংগ্রহের ফরম (জাতীয় পরিচয় পত্র চেক)
ভোটার তথ্য সংগ্রহের ফরম

এরপর নিচের নোটিশটি ভালোভাবে পড়ে নিন।

কারা অনলাইন সেবার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন !!

আপনি ভোটার হয়ে থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করে এই ওয়েবসাইটের সুবিধা নিন। রেজিষ্ট্রেশন করতে নিন্মের ধাপসমূহ অনুসরণ করুণ-
১. প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী পূরণ করে নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করুন।
২. আপনার কার্ডের তথ্য ও মোবাইলে প্রাপ্ত এক্টিভেশন কোড সহকারে লগ ইন করুন।
৩. তথ্য পরিবর্তনের ফর্মে তথ্য হালনাগাদ করে সেটির প্রিন্ট নিয়ে নিন।
৪. তথ্য পরিবর্তনের স্বপক্ষে প্রয়োজনীয় দলিলাদি কালার স্ক্যান কপি অনলাইনে জমা দিন।

রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম

আশা করি, নোটিশটি পড়া শেষ হয়েছে। এরপর এই লিংকে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। এক্ষেত্রে ১ম ঘরে আপনার আইডি নম্বর, ২য় ঘরে আপনার জন্মদিন সিলেক্ট করুন। ৩য় ঘরে উপরের থাকা লেখাগুলো দেখে দেখে লিখে দিন। অর্থাৎ ক্যাপচা ইন্ট্রি করতে হবে।

ক্যাপচা এন্ট্রি করার সময় বড় হাতের ও ছোটহাতের অক্ষর ঠিকভাবে তুলতে হবে। যাহোক, এরপর সাবমিট লেখায় ক্লিক করুন।

রেজিষ্ট্রেশন করার ১ম ধাপ | জাতীয় পরিচয় পত্র চেক ও ডাউনলোড
রেজিষ্ট্রেশন করার ১ম ধাপ

১ম ধাপ সম্পন্ন হলো। এরপর আরেকটি পেজ পাবেন। নিচের ছবির মতো তথ্যগুলো পূরণ করতে হবে।

  • আপনার বিভাগ (Division) সিলেক্ট করুন। ছবিতে রাজশাহী সিলেক্ট করা হলো।
  • এরপর আপনার জেলা (District) সিলেক্ট করুন।
  • পরবর্তীতে আপনার উপজেলা (Upozilla) সিলেক্ট করুন।
  • পরবর্তী লেখায় ক্লিক করুন।
রেজিষ্ট্রেশন করার ২য় ধাপ | স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম
রেজিষ্ট্রেশন করার ২য় ধাপ

২য় ধাপের কাজও শেষ। এবার মোবাইল নম্বর দিয়ে OTP সংগ্রহ করার পালা। আইডি কার্ডের তথ্যে দেওয়া আপনার ফোন নম্বরের অংশ বিশেষ শো করবে। এক্ষেত্রে চাইলে আপনি মোবাইল নম্বর পরিবর্তনও করতে পারেন।

তবে মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করলে OTP পেতে কিছুটা বিলম্ব হতে পারে। নম্বর পরিবর্তন করতে হলে মোবাইল পরিবর্তন লেখায় ক্লিক করতে হবে। আমরা এক্ষেত্রে আগের নম্বরটি রাখছি। সেজন্য বার্তা পাঠান লেখায় ক্লিক করতে হবে।

বার্তা পাঠান (৩য় ধাপ) | এনআইডি কার্ড ডাউনলোড
বার্তা পাঠান (৩য় ধাপ)

৩য় ধাপ শেষ। ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড বা OTP পাওয়ার জন্য কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হতে পারে। এই সময় অবশ্যই পেজটি থেকে বের হওয়া যাবেনা। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি ঐ মোবাইল নম্বরে ম্যাসেজের মাধ্যমে ৬ ডিজিটের একটি OTP নম্বর পেয়ে যাবেন। খালি বক্সে নম্বরটি লিখে বহাল লেখায় ক্লিক করুন।

SMS এ পাওয়া OTP লেখার বক্স
SMS এ পাওয়া OTP লেখার বক্স (৪র্থ ধাপ)

৪র্থ ধাপও শেষ হলো। এরপর আরেকটি পেজ পাবেন সেখানে চাইলে আপনি পাসওয়ার্ড সেট করতে পারবেন। অথবা এড়িয়ে যান লেখায় ক্লিক করে শুধুমাত্র OTP দিয়েই লগিন করতে পারবেন। আমরা এড়িয়ে যান লেখায় ক্লিক করলাম।

এড়িয়ে যান লেখায় ক্লিক করুন
এড়িয়ে যান লেখায় ক্লিক করুন

রেজিষ্ট্রেশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এবার জাতীয় পরিচয় পত্র বা স্মার্ট কার্ড অনলাইন কপি ডাউনলোড করার পালা। তো চলুন দেরি না করে শুড়ু করি।

রেজিষ্ট্রেশনের পর স্মার্ট আইডি কার্ড ডাউনলোড

এই পেজে আপনি আইডি কার্ডের অনলাইন কপি ডাউনলোড করার অপশন পাবেন। সেখান থেকে ডাউনলোড লেখায় ক্লিক করে আইডি কার্ড ডাউনলোড করে নিন। কাজ শেষ।

স্মার্ট আইডি কার্ড ডাউনলোড
স্মার্ট আইডি কার্ড ডাউনলোড

আপনি একটি pdf ফাইলে স্মার্ট কার্ডটি পাবেন। এটিকে প্রিন্ট করে ন্যাশনাল আইডি কার্ড হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। আইডি কার্ডটি কেমন হবে তা দেখে নিন।

ন্যাশনাল আইডি কার্ডের নমুনা কপি
ন্যাশনাল আইডি কার্ডের নমুনা কপি

জাতীয় পরিচয় পত্রের অনলাইন কপির স্ক্রিনশট দেওয়া হলো। নিরাপত্তার জন্য কিছু তথ্য ঘোলা করে দেওয়া হলো। আশা করি, সবকিছু বুঝতে পেরেছেন। কোনো কিছু বুঝতে সমস্যা হলে অবশ্যই কমেন্ট করুন।

বিঃদ্রঃ রেজিষ্ট্রেশন করার সময় সঠিক ঠিকানা দিন। তা না হলে একাউন্ট লক হয়ে যেতে পারে।

NID card অনলাইন কপি দিয়ে কি কি করা যাবে?

NID card বা জাতীয় পরিচয় পত্র চেক ও ডাউনলোড তো করা শেষ। এই অনলাইন আইডি কার্ড দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট খোলা, সিমকার্ড রেজিষ্ট্রেশন করাসহ যাবতীয় অনেক কাজই কারতে পারবেন।

সাধারণ আইডি কার্ড দিয়ে যা যা করা যায় এই অনলাইন আইডি কার্ড দিয়েও সেগুলো করা যাবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র চেক করার এই নিয়মটির কোনো কিছু বুঝতে অসুবিধা হলে কমেন্ট করুন।

এখানে ক্লিক করে জাতীয় পরিচয় পত্র নিয়ে কিছু সাধারণ প্রশ্ন জেনে নিন। এটি আপনাকে অনেক সাহায্য করবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন

আইডি কার্ডে অনেক সময় বিভিন্ন তথ্য ভুল আসে। এটা অনেক সময় তাড়াহুড়ায় অথবা কর্মীদের কাজের চাপে হয়ে যায়। সবকিছুই ভুল বশত। কিন্তু এটার জন্য আমাদেরকে অনেক ঝামেলায় পড়তে হয়।

আরো পড়ুন…….

কিন্তু আমরা চাইলেই কিন্তু খুব সহজেই জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন করতে পারি। যে ভুলগুলো আছে, সেগুলো ঠিক করে নিতে পারি। কিন্তু কিভাবে?

নিচে থেকে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন ফরমটি ডাউনলোড করুন। এটি একটি পিডিএফ (pdf) ফাইল।

জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন ফরম এর নমুনা
জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন ফরম এর নমুনা

ফরমে থাকা নির্দেশনাবলি ভালোভাবে পড়ে নিন। এরপর এনআইডি কার্ডে থাকা বর্তমান তথ্য ও সংশোধিত তথ্য দিয়ে ফরমটি পূরণ করুন।

সঠিকভাবে পূরণ করার পর আপনার উপজেলা অফিসে ফরমটি জমা দিন। বাড়তি কোনো কিছু দরকার হলে বা কিছু বুঝতে সমস্যা হলে তাদেরকে জিজ্ঞেস করুন।

যেকোনো সমস্যায় নির্বাচন কমিশনের হেল্পলাইন

আইডি কার্ড ডাউনলোড, তথ্য ভুল থাকা, অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন করার সময় সমস্যা হলে নির্বাচন কমিশনের হেল্পলাইনে যোগাযোগ করুন। আশা করি, আপনার সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

ই-মেইলঃ [email protected]
হেল্পলাইনঃ 105 এবং +8801708-501261
যোগাযোগের সময়ঃ রবি-বৃহস্পতি, সকাল ৯:০০টা – বিকাল ৫:০০টা পর্যন্ত।

এরকম আরো ট্রিক্স পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন ট্রিক ব্লগ বিডি

এই পোস্ট সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন, অভিযোগ, মতামত বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। আমরা সকল কমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করি। সকল আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন। আর টুইটারে ফলো করুন।

Spread the love

61 COMMENTS

    • এই মূহুর্তে বিকাশ অ্যাপ দিয়ে স্কিটো সিমে রিচার্জ করার কোন সিস্টেম নেই। তবে আশা করি ভবিষ্যতে সেই ব্যবস্থা নিশ্চয়ই আসবে।

      তবে, *247# ডায়াল করে আপনি রিচার্জ করতে পারেন।

  1. ভাইয়া আপনি বললেন যে রেজিস্ট্রেশন করার সময় নিজের নামে রেজিষ্টরেশন করা মোবাইল নম্বর দিতে হবে,, এখন যেহেতু আমি নতুন ভোটার সেহেতু আমার মোবাইল নম্বর ও নিজের নামে রেজিষ্ট্রেশন করা হইনি,, এই বিষয়টি একটু বুঝিয়ে বললে বা কি করা উচিত জানালে খুশি হতাম।

    • তাহলে আপনার মা-বাবার নম্বর দিতে পারেন। অবশ্যই এই নম্বরটি সবসময়ই লাগবে। তাই এই ব্যাপারে এমন কারো নম্বর দিতে যার এক্সেস অন্য কেউ পাবেনা, শ্যধু আপনি পাবেন।

      তাই নিজের নম্বর ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। আর যদি না থাকে তাহলে মা-বাবার নম্বর ব্যবহার করতে পারেন।

  2. আমি ১৯মে ২০১৯ এ ভোটার হওয়ার যাবতীয় আনুঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করেছি। মোটা মুটি দু মাস পর থেকে চেষ্টা করছি কিন্তু অলনাইন কপি কোন ভাবেই পাচ্ছিনা।যতবার ঢুকতে চেষ্টা করেছি error দেখাচ্ছে।এই মুহুর্তে কি করলে আমি আমার আইডি কার্ডের অনলাইন কপি পেতে পারি।আইডি কার্ডটা আমার খুব জরুরী প্রয়োজন।

    • ভাই, সম্ভবত আপনার বয়স ১৮ হয়নি। কারণ, ১৬-১৭ বছরের লোকদেরও ভোটার আইডি তৈরির কার্যক্রম শুরু করা হয়। কিন্তু বয়স ১৮ পূর্ণ হওয়ার আগে আইডি কার্ড তৈরি হয়না।

      আর আরেকটা বিষয় হতে পারে। আপনার কথা মতো আপনি ১৯ মে ২০১৯ এ ভোটার হওয়ার জন্য প্রক্রিয়া শেষ করেছেন। অর্থাৎ খুব বেশি সময় হয়নি।

      সাধারণত এই সময়ের মধ্যে আইডি কার্ডের অনলাইন কপি প্রস্তুত হওয়ার কথা নয়। আইডি কার্ড প্রস্তুত হতে একটু সময় লাগে।

      একটু অপেক্ষা করুন। আশা করি শীঘ্রই আপনি অনলাইন NID card পেয়ে যাবেন।

      কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

      • আমার বয়স 01/03/2002 আমার ভোট 2019সালে করছি।।এখন আমি চাই নিবন্ধন স্লিপ দিয়ে সাধারণ ভাবে কাজ করার জন্য আইডিকার্ড বের করতে।। আমি কি বাহির করতে পারবো??

        • ১৮ বছর হওয়া ছাড়া আইডি কার্ডের জন্য ফটো তুললেও আইডি কার্ড তৈরি হয়না।

          তাই, সেই হিসেবে আপনার আইডি কার্ড তৈরি হওয়ার কথা নয়। তাই অনলাইন কপি পাবেন না।

          তবে, চেষ্টা করে দেখতে পারেন। হয়তো পাবেন না। কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

  3. amr jonmo 01-06-2001 আমি ২০১৯ আট মাসে ছবি তুলি আমি কি অনলাইন কপি পেতে পারি

  4. আমি অনলাইনে এন.আইডি বের করার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করতে পারছি না। রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়মটা জানতে চাই।

    • আপনার উপকারে আসতে পেরে আমরাও খুব আনন্দিত। আশা করি সাথেই থাকবেন।

  5. ভাই আমি কাতার প্রবাসী। আমার পাসপোর্টের সাথে NID. তথ্য কিছু সমস্যা যেমন আমার নাম ও বাবার নাম মার নাম সহ পাসপোর্টের সাথে কিছু ভুল। আমি চাচ্ছি nid তে নামের ভুল গুলো পাসপোর্টের সাথে মিলিয়ে ঠিক করার জন্য।
    এগুলো কি প্রবাস থেকে ঠিক করা যাবে কিনা? আর করা গেলে কেমনে করতে হবে?

    • ভাই, অনলাইনে (প্রবাসে থেকে) করতে পারবেন কিনা তা এই মূহুর্তে বলতে পারছিনা। তবে উপজেলায় গিয়ে এটা ঠিক করতে পারবেন।

      আমরা অবশ্যই এই ব্যাপারে জেনে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করবো। আমাদের সাথেই থাকুন।

  6. vai amr date of barth 1996 e ami goto 3 mash age nibondhon korechi kin2 votar slip e je 8 digit ear nmber ache ta diye online tottho ber hoschena lekha astiche
    No voter center information is associated with this NID or Form No. Please contact with our call center: 105
    ekhn ami online e nid id kmne ber korbo ??

    • ভাই, আপনি ১০৫ এ কল করুন। তারাই আপনাকে সাহায্য করতে পারবে।

      কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

    • আপনার কমেন্টেই উত্তরটা দেওয়া আছে। Time-out, The server didn’t respond in time. অর্থাৎ, তাদের সার্ভারে সমস্যা। সার্ভার ঠিককমতো লোড নিতে পারছেনা। যার কারণে 505 ইরর দেখাচ্ছে।

  7. ভাই ক্যাপচা টা অদ্ভুত রকমের মোবাইল ফোন দিয়ে হচ্ছে না বার বার ইরর দেখায়। মোবাইল ফোন দিয়ে কি করা যায় না এই কাজটি

  8. ভাই আমার টা হয়েছিল ২১/৭/২০১৯ এখন তা দেখার প্রয়োজন। আমি দেখবো।

  9. আমি ২০১৯ ভোটার ফ্রম পুরোন করেছি আমি কি আইডি কাডের ফটো কপি পাবো? এবং সেটা কি করে?

    • না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। যদি আপনার বয়স ১৮ হয়ে থাকে তাহলে পেতে পারেন। চেষ্টা করে দেখুন। আর ১৮ এর কম হলে পাবেন না।

  10. Vai 1998 a jonmo…nid hoye gese mone hoy…amr problem hoilo nid korar shomoy j slip ta disilo sheta ami haraya falaisi…akhn koronio ki….r ami 47 no ward ar..kothay gele nid ta pabo…full details pls

  11. আসছালামু আলাইকু, ভাই আমি ০৭/০৬/২০০৮ সালে জাতীও পরিচয় পত্র, পেয়েছি গুলশান _১২১২, বাড্ডা, ঢাকা ,, আমি এখনো এস্মাট কার্ড নিতে পারিনি আমি বাহিরে থাকি, এখন আমি কি বাবে পেতে পারি একটু যানাবেন !

    • ভাই, স্মার্টকার্ড সম্পর্কে এই মূহুর্তে আমাদের কাছে কোনো তথ্য নেই। তাই বলতে পারছিনা।

      কমেন্ট করার জন্য জন্য ধন্যবাদ।

  12. ভাই আমার আইডি চেক করতে পারচিনা অনলাইন রেজি করা লগিন করলে দেখাচ্ছে এন আইডি নং বুল জন্ম তারিখ ভুল

    • এটাতো ভুল দেখানোর কথা না। আপনি আপনার উপজেলায় যোগাযোগ করুন। মূলত কি সমস্যা হয়েছে তারা তার সমাধান দিতে পারবে।

      আর আমরা না দেখে কিছু বুঝতেও পারছিনা। আপনি উপজেলায় যান। আশা করি, সমস্যার সমাধান পাবেন।

      কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

    • ইউটিউবে সার্চ করে জেনে নিন। কারণ, বর্তমানে বেশিরভাগ ওয়েবসাইটেই স্পাম ঠেকাতে ক্যাপচা জিনিসটি ব্যবহার করা হয়। আমাদের সাইটেও আছে। আপনাকে এটি জানতেই হবে।

  13. ভাই আমার এন আই ডি নাম্বার ১২ ডিজিটের আসছে তাই এখন রেজিস্টেশন করতে পারছি না কি করবো??

  14. ভাইয়া আমি ২০১৯ সালে নতুন ভোটার নিবন্ধন করেছি। আমার প্রশ্ন হলোঃ আমি আমার ফরম স্লিপ নাম্বার, জন্ম তারিখ দিয়ে ভোটার কার্ড তথ্য দেখতে পারছি। কিন্তু অনলাইন কপি বের করবার জন্য বা সব তথ্য দেখার জন্য রেজিষ্ট্রেশন ফরম পূরণ করার পর সাবমিট দিলাম কিন্তু বার বার বলছে যে বর্তমান/স্থায়ী ঠিকানা ভুল। কিন্তু আমি নিবন্ধন ফরম এ যা দিয়েছি এখানেও তা দিয়েছি। আমি ব্যাপারটা নিয়ে খুব চিন্তিত। অনুগ্রহ করে পরামর্শ দিবেন এই আশা করি????????????????

    • প্রথমেই কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ। বর্তমানে সমস্যাটি অনেকেই পাচ্ছেন। কয়েকজন আমাদেরকে বিষয়টি ফেসবুকেও জানিয়েছেন।

      আমার মনে হচ্ছে, নির্বাচন কমিশনের কোনো প্রযুক্তিগত সমস্যা হচ্ছে। আশা করি, বিষয়টি তাদের নজরে এলে দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে।

      আপনার করণীয় কি?
      আপনি একটি কাজ করতে পারেন। যেহেতু আপনি এমন সমস্যা পাচ্ছেন। তাই নির্বাচন কমিশনের হেল্পলাইন নম্বর ১০৫ এ কল করে বিষয়টি জানাতে পারেন। তারা আপনার সমস্যা দ্রুত সমাধান করে দিতে পারবে।

    • পাসওয়ার্ড না দিলেও তো হয়। আমাদের পোস্টে তো পাসওয়ার্ড ছাড়াই লগিন করার সিস্টেম দেওয়া হয়েছে।

      দয়া করে পোস্টটি আরেকবার রিফ্রেশ করে দেখে নিন।

      কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

  15. account login korte jaya ami vul kore dui bar registretion kore felechi jar karone amr nid loked kore dewa hoiasa akhon ki korbo

    • হেল্পলাইনে যোগাযোগ করুন। আমাদের পোস্টে হেল্পলাইন নম্বর ও ইমেইল দেওয়া আছে। কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ।

  16. আসসালামু আলাইকুম..! ভাই রেজিস্ট্রেশন করতে গেলে সব সময় অপত্তাসিত সমস্যার জন্য দুঃখিত কিছু খন পর আবার চেষ্টা করেন..!এই লেখা টাই বার বার আসে..? অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারলে ,মেইন কপি পাইতে কোন সমস্যা হইব নাত…?

    • নতুন কি বুঝাতে চাচ্ছেন? বিষয়টা স্পষ্ট করে বলুন। যারা ভোটার হওয়ার আবেদন করেনি তারা?

  17. সব কিছু ঠিক কিন্তু এন আই ডি ডাউনলোড হয় না। ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করলে নিয়মাবলী সম্পর্কিত একটা মেসেজ আসে, কিন্তু ডাউনলোড হয় না। এটার সমাধান কি?

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *

হাবিবুর রহমান একজন কন্টেন্ট রাইটার। একই সাথে খুটিনাটি কিছু এসইও এর কাজ করেন। ট্রিক ব্লগ বিডিতে সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।