TrickBlogBD.com

Gain and Give knowledge

Sponsored

News

কেরামতিয়া বড় মসজিদ (ভাঙ্গা মসজিদ) | লালমনিরহাট

কেরামতিয়া বড় মসজিদ

বুকের ছাতি ফাঁটা তৃষ্ণার্ত পথিক যখন হিমেল হাওয়ায় কোন বিটপীর ছায়াতলে বসে খানিক জুড়ায়, তখন তার হৃদয়টা অজানা এক সুখে শীতল হয়ে আসে। তেমনই ঈমানদার মুসলমান যখন মসজিদের ভিতরে অবস্থান করে তখন তার মনটা শীতল হয়ে আসে।

কেরামতিয়া বড় মসজিদ (ভাঙ্গা মসজিদ)
কেরামতিয়া বড় মসজিদ (ভাঙ্গা মসজিদ)

বলছিলাম লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা উপজেলার দোলাপাড়া ‘ভাঙা মসজিদের’ কথা। চারিদিকে ঘন অরণ্যের মাঝে এ মসজিদটি বড়ই অপুর্ব। মসজিদটি ঘিরে রয়েছে জানা অজানা হাজারো কাহিনি।

Advertisement

কথিত আছে যে, মুঘল আমলে কেরামত নামক এক সুফি দরবেশ ছিলেন। এই অঞ্চলে তার বসবাস ছিল বলে ধারণা করা হয়। মুঘল আমলের ধ্বংসাবশেষ দেখে এটাই প্রমাণিত হয় যে, এখানে হয়তো কোন ধনী ব্যক্তিরা বাস করতেন।

মসজিদটি প্রচারবিমুখ ছিল দীর্ঘদিন। যখন প্রচারমাধ্যমে আসে তখন সেখানে ছিল একটি ধ্বংসাবশেষ কুটির। যার উপরে ছিল বড় আকৃতির গম্বুজ। পাশেই ছিল সুফি দরবেশ কেরামত হুজুরের কবর (মাজার)।

জানা যায়, কেরামত হুজুর এই কুটিরে বসে ধ্যান করতেন। এবং এটিকে মসজিদ হিসাবেই ব্যবহার করতেন৷ কুটিরটির ধ্বংসাবশেষ দেখে স্থানীয় লোকজন এর নাম দেয় ‘ভাঙ্গা মসজিদ‘। কিন্তু এত ছোট কুটিরে বেশি মুসল্লী নিয়ে নামাজ পড়ার অনুপযোগী হওয়ায় পুরাতন গম্বুজযুক্ত মসজিদটি ছেড়ে পশ্চিম পাশে একটু বড় আকৃতির মসজিদ নির্মাণ করা হয়।

১৯৪৭ সালে ভারত পাকিস্তান ভাগ হলে মসজিদটি পড়ে যায় জিরো পয়েন্টে। অর্থাৎ পাক-ভারত সীমান্তে। এতদিন থেকে অগোচরে থাকলেও এখন তা দুদেশের সরকারের নজরে এসেছে।

Advertisement

২০১১ সালে উচ্চ পর্যায়ে মসজিদের অনুমোদন হলে সে বছরই দ্বিতল ভবনের কাজ শুরু হয়। সে সময় মসজিদের নির্মাণকাজে বাধা দেয় বিএসএফ

বর্তমানেও (২০১৯) দ্বিতল ভবনের নির্মাণ কাজ চলছে। তবে ইতিপূর্বে যে কাজ হয়েছে তা দেখে একজন কঠিন হৃদয়ের মানুষেরও পরাণ শীতল হবে। বিভিন্ন ধরনের পাথরে খোদাই করা এ মসজিদ যেন অপরূপ মহিমায় মহিমান্বিত।

কেরামতিয়া বড় মসজিদের সামনে লেখক আরিফ হোসেন
কেরামতিয়া বড় মসজিদের সামনে লেখক আরিফ হোসেন

হাতিবান্ধা উপজেলার সুন্দরতম এ মসজিদটি ‘ভাঙা মসজিদ’ নাম পাল্টিয়ে শাহ্ সুফি কেরামত হুজুরের নামে নতুন নামকরণ করা হয় কেরামতিয়া মসজিদ বা বড় মসজিদ নামে। অনেকে কেরামতিয়া বড় মসজিদ নামেই চিনে।

আরো পড়ুন……..

প্রতি শুক্রবার দিক-দিগন্ত থেকে এই মসজিদে নামাজের জন্য আসে অনেক মুসল্লী। নারী পুরুষ একই মসজিদে (পর্দার সহিত) নামাজ আদায় করার এমন সুন্দর ব্যবস্থা লালমনিরহাট জেলার মধ্যে কোথাও আছে কিনা তা অজানায় থাকলো। অনেকে আল্লাহর ওয়াস্তে বিভিন্ন নিয়তে এই কেরমতিয়া বড় মসজিদে মুরগী খাসী মানত করেন৷

কেরামত হুজুরের কবর
কেরামত হুজুরের কবর

লেখক– মোঃ আরিফ হোসেন
লোকেশনঃ কেরামতিয়া বড় মসজিদ, দোলাপাড়া, বড়খাতা, হাতিবান্ধা, লালমনিরহাট।

Advertisements

প্রতিদিন নতুন নতুন টিপস ও ট্রিক্স পেতে ভিজিট করুন ট্রিক ব্লগ বিডি

Advertisement

এই পোস্ট সম্পর্কে আপনার কোনো মন্তব্য, পরামর্শ বা অভিযোগ থাকলে নিছে কমেন্ট করুন। আমরা প্রত্যেকটা কমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করি।

সকল আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন ও টুইটারে ফলো করুন

ট্রিক ব্লগ বিডি

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Admin Habibur Rahman is a School teacher. He is a mathematics students at Honners.