ডোমেইন ট্রান্সফার কি ও কিভাবে করে?

ডোমেইনিং নিয়ে যারা ঘাঁটাঘাঁটি করেছেন বা যারা ওয়েবসাইট চালান তারা ডোমেইন সম্পর্কে শুনে থাকবেন। কিন্তু অনেকেই ডোমেইন ট্রান্সফার কি ও কিভাবে করে সে সম্পর্কে সকল নিয়ম কানুন ভালোভাবে জানেন না। তাই আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হলো।

ডোমেইন ট্রান্সফার কি?

সহজ কথায় বলতে গেলে এক রেজিস্টার থেকে অন্য রেজিস্টারে ডোমেইন স্থানান্তর করাকেই ডোমেইন ট্রান্সফার বলে। যদি কেউ কোন কারনে যে কোম্পানি থেকে ডোমেইন কিনেছেন সেই কোম্পানির সার্ভিসে সন্তুষ্ট না থাকেন বা রিনিউ ফি বেশি হয় তাহলে ডোমেইন ট্রান্সফার করে থাকেন।

ডোমেইন ট্রান্সফার- TrickBlogBD
ডোমেইন নেম ট্রান্সফার

বেশিরভাগ লোকই জীবনে প্রথমবার ডোমেইন কেনার ক্ষেত্রে সঠিক কোম্পানি বাছাই করতে পারেন না। কিন্তু আস্তে আস্তে তারা এই বিষয়টি উপলব্ধি করার পর কোম্পানিটি থেকে ডোমেইন সরিয়ে নিতে চান। এছাড়াও আরো অনেক কারণ রয়েছে। এই সরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়াই হলো ডোমেইন নেম ট্রান্সফার। কিন্তু কথা হলো কিভাবে ডোমেইন ট্রান্সফার করে?

আরো পড়ুনঃ ডোমেইন কেনার আগে যে বিষয়গুলো অবশ্যই জানতে হবে

কিভাবে ডোমেইন ট্রান্সফার করে?

এক রেজিস্ট্রার থেকে কোনো ডোমেইন অন্য রেজিস্ট্রারে ট্রান্সফার করা কঠিন কাজ মনে হলেও আসলে খুবই সহজ। মাত্র কয়েকটি স্টেপ কাজ করেই যেকোনো ডোমেইন এক রেজিস্ট্রার থেকে অন্য রেজিস্ট্রারে ট্রান্সফার করা যায়। তাহলে আপনার কি কি করা লাগবে?

  • ডোমেইন আনলক করা
  • অথোরাইজেশন কোড বা EPP কোড নেওয়া
  • নতুন রেজিস্ট্রারে সাবমিট দেওয়া

আরেকটি কথা, ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার ৬০ দিনের মধ্যে ট্রান্সফার করা যাবেনা। অর্থাৎ ডোমেইন নেম ট্রান্সফার করার জন্য অবশ্যই ডোমেইনের বয়স কমপক্ষে ৬০ দিন হতে হবে। চলুন উপরের বিষয়গুলো কিভাবে করবেন সেটা জেনে নেওয়া যাক।

ভিডিওঃ সাইফুল মনি

১. ডোমেইন আনলক করা

প্রথমেই আপনার বর্তমান ডোমেইন কন্ট্রোল প্যানেলে যাবেন। সেখানে Domain unlock নামক বা এরকম কোনো একটি অপশন পাবেন। সেটি Disable অবস্থায় থাকবে। এটিকে Enable করে দিন।

Domain unlock অপশন খুঁজে না পেলে আপনার ডোমেইন রেজিস্ট্রার কোম্পানিতে সাপোর্ট টিকিট বা লাইভ চ্যাট করে জানান। তারা আপনাকে সহযোগিতা করবে।

সতর্কতাঃ ডোমেইন নেম ট্রান্সফার করা ছাড়া কখনোই আনলক রাখবেন না।

২. EPP বা Auth code নেওয়া

এই ধাপে আপনাকে EPP code টি সংগ্রহ করতে হবে। ডোমেইন কন্ট্রোল প্যানেলে EPP কোডের অপশনে গেলেই কোডটি পেয়ে যাবেন। এটি কপি করে নিন।

EPP কোড অনেকটা এরকম হয়ঃ X9S03ZQ5490KJ32AM

সতর্কতাঃ কখনোই EPP কোড কোনো ব্যক্তির সাথে শেয়ার করবেন না।

৩. নতুন রেজিস্ট্রারে সাবমিট করুন

প্রথমে আপনার সঠিক তথ্য দিয়ে যেই রেজিস্ট্রারে ডোমেইন নেম ট্রান্সফার করবেন সেটিতে একটি একাউন্ট খুলে নিন। ধরে নিলাম, আপনি Epik registrar এ ট্রান্সফার করবেন। তাহলে সেখানে Transfer to epik নামে একটি অপশন পাবেন। সেটিতে ক্লিক করুন।

এপিকের ডোমেইনের মূল্য ও ট্রান্সফার ফি জানতে এখানে ক্লিক করুন

যেই পেজ আসবে সেখানে প্রথমে ডোমেইন নাম যেমনঃ Trickblogbd.com এবং পরে EPP কোড বসিয়ে সাবমিট করুন।

অন্যান্য রেজিস্ট্রারেও এরকমই ডোমেইন নেম ও ইপিপি কোড বসানোর ঘর পাবেন। ঐগুলো সঠিকভাবে পূরণ করে ট্রান্সফার ফি প্রদান করুন।

সমস্যা হলে বা epp দেওয়ার ঘর খুঁজে না পেলে নতুন রেজিস্ট্রার কোম্পানির সাপোর্টে যোগাযোগ করুন। তারা আপনাকে সাহায্য করবে।

পুরাতন রেজিস্ট্রার থেকে ডোমেইন ট্রান্সফারের অনুমতি চেয়ে মেইল দেওয়া হতে পারে। মেইলে দেওয়া লিংকে গিয়ে পার্মিশন দিয়ে দিতে হবে।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ৩ থেকে ৫ কর্মদিবসের মধ্যেই ডোমেইন সফলভাবে ট্রান্সফার হয়ে যাবে। ট্রান্সফার স্ট্যাটাস দেখতে নতুন রেজিস্ট্রার প্যানেল বা Whois.com এ চেক করতে পারেন।

হু ইজ ডট কমে গিয়ে আপনার ডোমেইন লিখে সার্চ দিলে Domain status: Pending Transfer লেখা দেখলে নিশ্চিত হবেন যে ডোমেইনটি ট্রান্সফার প্রক্রিয়ায় আছে। কোনো প্রকার ঝামেলা নেই।

ডোমেইনটি সফলভাবে ট্রান্সফার হলে Status ও Registrar এর নাম পরিবর্তীত হয়ে যাবে। এছাড়াও ডোমেইনটি ১ বছরের জন্য রিনিউ হয়ে যাবে।

আরো পড়ুনঃ বিশ্বের সেরা ১০ টি ডোমেইন রেজিস্ট্রার কোম্পানি

শেষ কথা

আশা করি, ডোমেইন ট্রান্সফার ও ট্রান্সফারের নিয়ম কানুন সম্পর্কে কিছুটা হলেও ধারণা পেয়েছেন। এমনই সব নিত্য নতুন ট্রিক্স পেতে ট্রিক ব্লগ বিডির সাথেই থাকুন।

Sponsored by TrickBlogBD

ফ্রী মোবাইল রিচার্জ, বিভিন্ন এক্সক্লুসিভ টিপস & ট্রিক্স পেতে ও মতামত জানাতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top