ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হলে করণীয়

বিভিন্ন কারণে আমাদের ডোমেইন কেনার দরকার হয়। কেউ নিজের ওয়েবসাইট তৈরির জন্য, কেউবা ডোমেইন ব্যবসার জন্য ডোমেইন কিনেন। তবে কখনো কি ডোমেইন কেনার পর দেখেছেন যে বানান ভুল? যদি এমন পরিস্থিতিতে কখনো পড়ে থাকেন তাহলে সত্যি সেটি দূর্ভাগ্যজনক। আজকে আমরা জানবো ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হলে করণীয়?

ডোমেইন কেনা বা রেজিস্ট্রেশন সম্পর্কে আলোচনা করার আগে জেনে নিতে হবে ডোমেইন কি? এটি কিভাবে কাজ করে?

আমি ধরে নিলাম এ বিষয়ে আপনারা সবাই জানেন। যাহোক, মূল আলোচনায় চলে যাই।

ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হলে করণীয়

আমরা কেন ডোমেইন কিনি?

সাধারণত ৩ টি কারণে ডোমেইন কেনার দরকার হয়। এই তিনটি কারণ হচ্ছে-

  • নিজের বা নিজের কোম্পানির ওয়েবসাইট তৈরি করা
  • ক্লায়েন্টের ওয়েবসাইট তৈরি করে দেওয়া
  • ডোমেইন বিক্রির উদ্দেশ্যে কেনা

এই তিনটি উদ্দ্যেশ্যে কোনো ব্যাক্তি ডোমেইন কিনে থাকেন। যেমনঃ Trickblogbd.com হচ্ছে আমাদের কেনা ডোমেইন। আপনি এই লেখাটি যেই ওয়েবসাইটে পড়ছেন সেটিতে এই ডোমেইনটি ব্যবহার করা হয়েছে।

অর্থাৎ, আমরা আমাদের ডোমেইনটি আমাদের নিজেদের ওয়েবসাইট তৈরির জন্য কিনেছি।

আপনি যেই প্রয়োজনেই ডোমেইন কিনুন না কেন, ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হলেই মহা ঝামেলা ও বিপদ।

ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হলে কি করবেন?

আপনাদের প্রতি একটি পরামর্শ থাকবে, ডোমেইন কেনার আগে করণীয় বিষয়গুলো জেনে নিন৷ তারপরও অনেক সময় ভুল হয়ে যায়। যদি দেখেন ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার পর বানান ভুল হয়ে গেছে। তাহলে চিন্তার কোনো কারণ নেই।

বেশিরভাগ রেজিস্ট্রার কোম্পানিতেই বানান ভুল সংশোধন করার সিস্টেম থাকে। অর্থাৎ আপনি ডোমেইন কেনার পর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদেরকে বিষয়টি জানাতে হবে। সেক্ষেত্রে রেজিস্ট্রার কোম্পানি আপনার ডোমেইনটি বাতিল করে আপনাকে রিফান্ড করে দিবেন।

মনে রাখবেন, রিফান্ড দেওয়ার সময় সম্পূর্ণ টাকা কিন্তু ফেরত দেওয়া হবেনা। সামান্য একটা এমাউন্ট ICANN ফি হিসেবে কেটে রাখা হবে। এই ফি সর্বোচ্চ 0.5$ পর্যন্ত হতে পারে।

নোটঃ
* ডোমেইন ফেরত দেয়ার ক্ষেত্রে শুধুমাত্র ICANN চার্জ কেটে রাখা হয় সর্বোচ্চ 0.50$
* শুধুমাত্র gTLDs ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

আপনি পরবর্তীতে এই রিফান্ড পাওয়া টাকা দিয়ে যেকোনো ডোমেইন কিনতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার ডোমেইনের বানান সঠিক করে পুনরায় রেজিষ্ট্রেশন করে নিন।

কত সময়ের মধ্যে রিফান্ড নেওয়া যাবে?

রেজিস্ট্রারভেদে ডোমেইন বাতিল করে রিফান্ড নেওয়ার সময়সীমা আলাদা হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে কিছু নামি দামি ডোমেইন রেজিস্ট্রার এর রিফান্ড নেওয়ার সময়সীমা নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • এপিকঃ ৫ দিন (১২০ ঘন্টা)
  • নেমচিফঃ ৩ দিন (৭২ ঘন্টা)
  • গোড্যাডিঃ ২ দিন (৪৮ ঘন্টা)
Epik the best domain registrar

তাই মনে রাখবেন, ভুল ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করলে কোনো চিন্তা নেই। সময়সীমার মধ্যে আপনার ডোমেইন রেজিস্ট্রার এর সাথে যোগাযোগ করুন। তারা আপনার ডোমেইনটি ফেরত নিয়ে টাকা রিফান্ড করে দিবে।

আরো পড়ুনঃ আপনার ডোমেইনের মূল্য কত? এটি কি আসলেই মূল্যবান?

বিঃদ্রঃ আজেবাজে জায়গা থেকে ডোমেইন না কিনে শুধুমাত্র রেজিস্ট্রারদের কাছ থেকে ডোমেইন কিনুন।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.