পেঁয়াজের দাম নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কবিতা | বাজাও তালি

★ বাজাও তালি
মো: আরিফ হোসেন

বউয়ের রান্না জগৎ সেরা
রাঁধতে পারে বেশ
চুলোর আগুন জ্বালতে পারে
বাঁধতে পারে কেশ।

আজকে নতুন খবর শুনে
অবাক হইছি ভাই
এমন খবর অন্য কোথাও
আগে শুনি নাই।

শুনছি এসে অফিস শেষে
হয়েছে কি আজ
দারুণ করে রেঁধেছে বউ
দেয়নি তাতে পেঁয়াজ।

আমিও তাতে অনেক খুশি
এমন রান্না চাই
পেঁয়াজ ছাড়া রান্না যেনো
সারা বছর পাই।

দুইশো টাকায় আনতে পেঁয়াজ
পকেট হয় যে খালি
পেঁয়াজ ছাড়া রান্না হবে
জোরসে বাজাও তালি।

আরো কবিতা পড়ুনঃ

কবিতার মর্মকথা

বর্তমান নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মধ্যে পেঁয়াজের দাম আকাশ ছোঁয়া। চক্রবৃদ্ধি হারে যেন এর দাম বেড়েই চলেছে। যে পেঁয়াজের দাম সকালে ১০০ টাকা ছিল তা বিকালে চড়চড় করে উপরে উঠে সকালের থেকে দ্বিগুণ বা তারও বেশি হচ্ছে।

পেঁয়াজের আকাশছোঁয়া দাম
পেঁয়াজের আকাশছোঁয়া দাম

ভারত সরকার বাংলাদেশের সাথে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে। এতে মজুদকৃত পেঁয়াজের দাম যেন ক্রেতার নাগালের বাইরে। যত দিন যাচ্ছে তত যেন পেঁয়াজ দূর্লভ বস্তুতে রূপান্তরিত হচ্ছে।

পেঁয়াজের এমন আকাশছোঁয়া মূল্য দেখে কবিমন বিষিয়ে উঠেছে। তাইতো তরুণ কবি: আরিফ হোসেন তার ★বাজাও তালি ছড়াটি ব্যঙ্গ করে পেঁয়াজের মূল ভাবান্তর তুলে ধরেছে।

আরো পড়ুনঃ পেঁয়াজের মতো ভালোবাসা

মূলত, কবি এখানে ব্যঙ্গার্তক করে লিখেছে ‘বউ’ পিঁয়াজ ছাড়া রান্না করায় যেন সমাজের নতুন একটি মাত্রা এসেছে।

কবি বলেছে, যে চুল বাঁধতে জানে, সে রাঁধতেও জানে। অর্থাৎ যে(বউ) এতোদিন পিঁয়াজ দিয়ে রেঁধেছে, সে এখন পিঁয়াজ ছাড়াও রাঁধতে জানে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.