লিভার ভালো রাখার উপায় | খাবার, ব্যায়াম, ঔষধ

আমাদের দেহের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ হলো লিভার। লিভারে জটিলতা দেখা দিলে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। তাহলে বুঝতেই পারছেন লিভার সুস্থ রাখা কতটা গুরুত্বপূর্ণ। আজ আমরা লিভার ভালো রাখার উপায়, ব্যায়াম, খাবার, ঔষধ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।

লিভার ভালো রাখার উপায়
লিভার ভালো রাখার উপায়

তাহলে লিভার ভালো রাখার উপায় কি? লিভারকে ভালো ও সুস্থ রাখতে কিছু বিষয়ে আপনাকে যত্নবান হতে হবে। নিচে লিভার ভালো রাখার উপায়গুলো বর্ণনা করা হলো।

লিভার ভালো রাখার খাবার

লিভারকে ভালো ও সুস্থ রাখতে কিছু খাবার খেতে পারেন। এই খাবারগুলো আপনার লিভারকে ভালো রাখবে। তো চলুন, লিভার ভালো রাখে যেসব খাবার সেসব খাবারের একটি তালিকা দেখে নেওয়া যাক।

  1. লেবু
  2. রসুন
  3. আপেল
  4. কফি
  5. মাছ
  6. মাংস
  7. ডিম
  8. সামুদ্রিক মাছ
  9. বেরিজাতীয় ফল
  10. চর্বিযুক্ত মাছ
  11. পানি
  12. অলিভ ওয়েল
  13. বাদাম ও শস্য
  14. হলুদ
  15. সবুজ শাক-সবজি
  16. জাম্বুরা
  17. বিটরুট
  18. অ্যাভোকাডো
  19. আখরোট

এ পর্যায়ে উল্লেখিত খাবারগুলোর মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ খাবারের কার্যকারিতা সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো।

স্বাস্থ্যকর খাবার
স্বাস্থ্যকর খাবার

লেবুঃ লেবুতে ভিটামিন সি থাকে। এটি শরীরের বিষাক্ত পদার্থগুলোকে শোষণ করতে সাহায্য করে।

রসুনঃ লিভারকে পরিষ্কার রাখার জন্য রসুন একটি গুরুত্বপূর্ণ খাবার। রসুনে থাকা এনজাইম শরীরের টক্সিক উপাদান পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

হলুদঃ হলুদ একটি মসলাজাতীয় উপাদান। বাংলাদেশের রান্নাবান্নায় এটি একটি প্রচলিত মসলা। এই হলুদ আপনার শরীরের টক্সিক উপাদানগুলোকে পরিষ্কার করতে সহযোগিতা করে। এজন্য প্রতিদিন এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে এক চা চামচ হলুদ মিশিয়ে পান করতে পারেন।

চর্বিযুক্ত মাছঃ মাছের চর্বি লিভারের জন্য খুবই উপকারী। এতে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড ও স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে, যা লিভারের জন্য অত্যন্ত উপকারি। তাই নিয়মিত চর্বিযুক্ত মাছ খাওয়ার চেষ্টা করুন।

আপেলঃ আপেল খুবই জনপ্রিয় ও পরিচিত একটি ফল। এর নানাবিধ উপকারিতার কথা অনেকেই জানেন। আপেলে পেকটিক নামক এক ধরণের উপাদান থাকে, যা হজমনালী ও লিভারকে বিষমুক্ত রাখতে সাহায্য করে।

আরো পড়ুনঃ কৃমি হওয়ার লক্ষণ ও কৃমির ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

সবুজ শাক-সবজিঃ ডাক্তাররা অনেক রোগীদেরই সবুজ শাক-সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু বেশিরভাগ লোকই তা মানতে চাননা। শাক-সবজি শরীরের জন্য খুবই উপকারি। এটি পায়খানা সৃষ্টি করে ও মলত্যাগের পরিমাণ বৃদ্ধিতে সহযোগিতা করে। যার ফলে শরীরের রক্ত ও লিভার পরিষ্কার থাকে।

অলিভ ওয়েলঃ এটি শরীরের বিষাক্ত পদার্থ শোষণ করে। অর্থাৎ লিভারের কাজকে সহজ করে দেয়।

জাম্বুরাঃ লেবুর মতোই জাম্বুরাতেও ভিটামিন সি থাকে। যা লিভারকে বিষমুক্ত রাখতে সাহায্য করে।

লিভার ভালো রাখার ব্যায়াম

লিভারকে সুস্থ সবল রাখার জন্য ব্যায়ামের কোন বিকল্প নেই। যাদের ওজন খুব বেশি তাদের লিভারের সমস্যা দেখা দিলে বড় ধরণের ঝুঁকি থাকে। তাই আপনাকে অবশ্যই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

লিভার ভালো রাখার ব্যায়াম
লিভার ভালো রাখার ব্যায়াম

ওজন নিয়ন্ত্রণের সহজ ও প্রচলিত একটি উপায় হলো ব্যায়াম করা। লিভারকে সুস্থ রাখতে প্রতিদিন শারিরিক ব্যায়াম করতে হবে। এটি আপনার শরীরের অনেক উপকার করবে। একইসাথে ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে সহযোগিতা করবে।

বিশেষ কোন ব্যায়ামের প্রয়োজন নেই। সচরাচর যেসব ব্যায়াম করা হয় সেগুলো করতে পারেন। যেমন দ্রুত হাঁটা, সাইকেল চালানো, সাঁতার কাটা ইত্যাদি। এতে করে লিভারসহ দেহের বিভিন্ন অঙ্গ সুস্থ থাকবে। নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেন।

সৌজন্যেঃ Gagan Information

লিভার ভালো রাখার ঔষধ

যেকোন রোগের জন্য ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ঔষধ খাওয়া কোনমতেই ঠিক নয়। আর লিভারের মতো গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ক্ষেত্রে কোনমতেই ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ঔষধ খাওয়া মোটেই উচিত হবেনা।

নিজে নিজে ঔষধ খেলে হিতে বিপরীত হবে। তাই এই বিষয়ে পরামর্শ নিতে একজন ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন। অথবা 16263 নম্বরে কল করেও ফ্রীতে পরামর্শ নিতে পারে।

মদপান থেকে বিরত থাকুন

মদ ইসলাম ধর্মে নিষিদ্ধ একটি খাবার। এর মূল কারণ হচ্ছে মদ একটি ক্ষতিকারক বস্তু। এটি আমাদের শরীরে বিভিন্নভাবে ক্ষতি সাধন করে।

অতিরিক্ত মদপান করলে লিভারের কোষ নষ্ট হয়ে যায়। তাই লিভারকে সুস্থ রাখার জন্য অবশ্যই মদপান করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

ঔষধ খাওয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক হোন

অনেক সময় আমরা ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই নিজেরা বিভিন্ন ঔষধ খেয়ে থাকি। অনেকেই কিছু কিছু ঔষধ দীর্ঘমেয়াদে খেয়ে থাকেন। কিন্তু কিছু কিছু ঔষধ লিভারের ক্ষতি করে। তাই না জেনে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোন ঔষধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

শেষ কথা

লিভার ভালো রাখার উপায় নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে আমরা আরো কয়েকটি বিষয়ে আলোচনা করলাম। লিভার ভালো থাকে কি খেলে, কি কি ব্যায়াম করতে হবে, কি কি করা যাবেনা এসব বিষয়ে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি।

আশা করি, আপনারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন ও সুস্থ থাকবেন। আমাদের ওয়েবসাইটের স্বাস্থ্য বিষয়ক অন্যান্য পোস্টগুলোও দেখে আসতে পারেন।

তথ্যসূত্রঃ জাগো নিউজ 24, কালের কণ্ঠ, আনন্দবাজার পত্রিকা, ঢাকা পোস্ট, যুগান্তর

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top