নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট তো অনেকেও খুলেছেন, কিন্তু একাউন্ট বন্ধ করতে চান এমন মানুষের সংখ্যাও কম নয়। বিভিন্ন কারণে একাউন্ট বন্ধ করার দরকার হয়। এই আর্টিকেলে নগদ একাউন্ট ডিলিট করার বা নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি বিস্তারিত দেওয়া হলো।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

একাউন্টের নম্বর পরিবর্তন, একাউন্ট বন্ধ করা, মালিকানা পরিবর্তন ইত্যাদির জন্য একাউন্ট বন্ধ করার দরকার হয়।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট বন্ধ করা খুব কঠিন কোনো কাজ নয়। এজন্য ছোট্ট কয়েকটি পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

একাউন্ট ব্যালেন্স শূন্য (০) করুন

একাউন্ট বন্ধ করার জন্য ১ম শর্ত হলো একাউন্ট ব্যালেন্স শূন্য (০) হতে হবে। একাউন্ট ব্যালেন্স কিভাবে শূন্য করবেন?

একাউন্ট শুন্য করার জন্য মোবাইল রিচার্জ, সেন্ড মানি, ক্যাশ আউট ইত্যাদি করতে পারেন। তবে যদি ভগ্নাংশ পরিমাণ ব্যালেন্স (যেমনঃ ৫০.৬৯, ৪৯৭.০৭ ইত্যাদি) থাকে তাহলে?

তাহলে প্রিয়জনের নম্বরে সেন্ড মানি করতে পারেন। সেন্ড মানিতে দশমিক অংকের টাকাও সেন্ড করা যায়।

অ্যাপ থেকে একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করে নিন। এরপর যত টাকা রকাউন্টে আছে ঠিক তত টাকাই সেন্ড মানি করে দিন। তাহলে একাউন্ট ব্যালেন্স শুন্য হয়ে যাবে।

আর যদি *১৬৭# ডায়াল করে সেন্ড মানি করেন তাহলে ৫ টাকা ফি হিসেব করে সেন্ড করুন।

একাউন্ট ব্যালেন্স তো শুন্য হয়ে গেলো। এরপর পরবর্তী স্টেপ ফলো করুন।

নিকটস্থ নগদ কাস্টমার সেন্টারে যান

একাউন্ট ব্যালেন্স শুন্য করার পর নিকটস্থ কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যেতে হবে। সেখানে দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে বলুন “আমি নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে চাই”।

এক্ষেত্রে যার নামে একাউন্ট তাকে স্বশরীরে কাস্টমার সেন্টারে যেতে হবে। সাথে করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে যেতে হবে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ

  • জাতীয় পরিচয়পত্র বা এনআইডি কার্ড
  • আইডি কার্ডের অনলাইন কপি
  • পাসপোর্ট

উপরে দেওয়া যেকোনো একটি ডকুমেন্ট নিয়ে কাস্টমার সেন্টারে যেতে হবে। যার নামে একাউন্ট তাকেই যেতে হবে। অন্য কেউ গেলে হবেনা।

দায়িত্বরত কর্মকর্তা আপনার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে একাউন্ট বন্ধ করার বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বাতিল করার নিয়ম

কাস্টমারে সেন্টারে না গিয়ে ঘরে বসে একাউন্ট বন্ধ করা কতই না সহজ তাই না? কিন্তু দুঃক্ষের বিষয় এই যে, ঘরে বসে একাউন্ট খুলতে পারলেও বন্ধ করার কোনো সিস্টেম নেই।

আশা করি, নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। কোনো বিষয় বুঝতে না পারলে কমেন্ট করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top